ভাত খাওয়ার পর ভুলেও এই কাজগুলি করবেন না

রাতে বা দুপুরে খাবার পর অনেকেরই কিছু না কিছু অভ্যাস থাকে।কেউ গান শোনেন,কেউ বই পড়েন,কেউ মুভি দেখেন,কেউ ফোন নিয়ে ঘাটেন আর কেউ কেউ তো সটান শুয়ে পড়েন।এসবের মধ্যে কোনগুলো ভালো আর কোনগুলোই বা শরীরের পক্ষে অস্বাস্থ্যকর! তাই আমরা আজকে জানবো যা করলে বা পরিত্যাগ করলে আপনি অবশ্যই অনেক উপকার পাবেন।তো চলুন জেনে নেওয়া যাক-

Table of Contents

শুয়ে পড়া

 খাওয়ার পর সাথে সাথে শুয়ে পড়া শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর।কারণ খাওয়ার পর ঘুমিয়ে পরলে বদ-হজম, অ্যাসিড রিফ্লাক্স প্রভৃতি সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। তাই লাঞ্চ এবং ডিনার করার কম করে ১ ঘন্টা পর শুতে যাওয়া উচিত। তার আগে একেবারেই নয়।

শরীরচর্চা

পেট ভরে খাবার খাওয়ার পর শরীরচর্চা করা একেবারেই উচিৎ না। এমনটা করলে পেটে যন্ত্রণা, মাথা ঘোরা এবং ডায়ারিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়। তাই এমন কাজ ভুলেও করবেন না।

জল খাওয়া

খাবার পরে স্যালাইভা খাবার হজমের কাজে লাগে পরে। সেই সঙ্গে খাবারে উপস্থিত খারাপ ব্যাকটেরিয়াদের মেরে ফেলে এবং পেট খারাপের হাত থেকেও আমাদের রক্ষা করে থাকে। এই সময় জল খেলে স্যালাইভা নিজের কাজ ঠিক মতো করতে পারে না। ফলে একদিকে খাবার যেমন ঠিক মতো হজম হতে পারে না। তেমনি অন্যদিকে খারাপ ব্যাক্টেরিয়াদের কারনে নানা রোগের সৃষ্টি হয় এখন প্রশ্ন হল, খাবার খাওয়ার কতক্ষণ পরে জল খাওয়া উচিত? দেখা গেছে স্যালাইভা কাজ শেষ করতে কম-বেশি প্রায় ৩০ মিনিট সময় নেই। তাই খাবার প্রায় আধ ঘণ্টা পর জল খাওয়া উচিত।

স্নান করা

খাবার ঠিক মতো হজম করতে পেটের দিকে রক্ত প্রবাহ ঠিক মতো হওয়াটা একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু খাবার খেয়েই যদি কেউ স্নান করেন তাহলে এই প্রক্রিয়া বিগ্নিত হয়। ফলে বদ-হজম হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে য়ায়। তাই তো খাবার খাওয়ার কমকরে 30 মিনিট থেকে 1 ঘন্টা পর স্নান করে উচিত।

চা খাওয়া

 চায়ে উপস্থিত ট্যানিক অ্যাসিড খাবারে উপস্থিত প্রোটিন এবং আয়রনের কর্যকারিতাকে কমিয়ে দেয়। ফলে শরীরে পুষ্টির অভাব দেখা দেয়। তাই শরীর কে সুস্থ রাখতে খাবার পরেই চা খাওয়া উচিত না।

ঘুম

ভাত খাওয়ার পর সাথে সাথে একদম ঘুমানো উচিৎ না। এতে শরীরে মেদ বা স্থুলতা বৃদ্ধি পাই। যার কারনে শরীরে বিভিন্ন রোগের সৃষ্টি হই।

[siteorigin_widget class=”WP_Widget_Custom_HTML”][/siteorigin_widget]

Leave a Comment