Gastric Problem Solution Tips in Bengali – গ্যাসের সমস্যা


আচ্ছা আপনার কি গ্যাসের বা এসিডিটি সমস্যা ( Acidity Problem) আছে? মশলাযুক্ত খাবার খেলেই বুক জ্বালা,
পেট ফুলে যাওয়ার মত বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। না এতে চিন্তার কিছু নেই, কারন এই সমস্যা টা সকলেরই কম বেশি রয়েছে।
তাই আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো এই সমস্যার কিছু ঘরোয়া সমাধান। যার ফলে আপনার গ্যাস বা এসিডিটি সমস্যা
সারাজীবনের জন্য চলে যাবে। তাই শেষ পর্যন্ত পরবেন আর ভালো লাগলে অবশ্যই লাইক, শেয়ার ও শেষে কমেন্ট করবেন।

নমস্কার, আমি Krishna সকলকে স্বাগত জানাই SHOBDOCHARI.COM এ। বর্তমান বাস্তব জীবনে গ্যাস
বা এসিডিটি সমস্যা একটি ঘরয়া রোগ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আসলে এই সমস্যা যাদের হয় তারাই জানে এটি কতটা যনজন্ত্রনাদায়ক।
আজকালকার দিনে প্রতেকের বাড়িতে আপনি কিছু পান আর নাই পান গ্যাসের ওষুধ কিন্তু অবশ্যই পাবেন। কিন্তু অতিরিক্ত
গ্যাসের ওষুধ খাওয়া সাস্থের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক। কিন্তু কিছু ঘরোয়া উপায় আছে যেগুলি ব্যাবহার করলে গ্যাসের
সমস্যা থেকে সহজেই নিস্তার পাওয়া যায়। তো চলুন সেগুলি কি এক এক করে দেখে নেওয়া যাক-

গ্যাসের সমস্যা দূর করার উপায়- কি কি খেতে হবে।

 

পেপেঃ-

পেঁপে তে রয়েছে পাপায়া নামক এক প্রকার এনজাইম যা আমাদের হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। পেঁপে খেলে পায়খানা
অনেক পরিস্কার হয়। তাছাড়াও নিয়মিত পেঁপে খেলে গ্যাসের সমস্যা দূর হয়ে যায়।

কলা-

কলা পাকস্থলির অতিরিক্ত সোডিয়াম দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও কলাতে উপস্থিত ফাইবারের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য
দূর হয়ে যায়। তাই নিয়মিত দুটি করে কলা খাওয়া প্রয়জন।

আদা-

আদা হল অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদানসমৃদ্ধ খাবার।পেটে গ্যাস হলে আদা কুচি করে লবন দিয়ে খান। এতে গ্যাসের সমস্যার
সমাধান হবে।

লবঙ্গ-

লবঙ্গ মুখে দিয়ে চুষলে বুক জ্বালা, বমিবমিভাব, গ্যাস দূর হয়। এছাড়া লবঙ্গ মুখের দুর্গন্ধ দূর করসশ

দই-

দই আমাদের হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এর ফলে খাবার তাড়াতাড়ি হজম হয়ে যায়, তাই গ্যাস হয়ার সম্ভবনা থাকে না।

শসা-

শসা পেট ঠাণ্ডা করতে বিশেষ ভুমিকা পালন করে। এতে রয়েছে ফ্লেভানয়েড ও অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান যা পেটে গ্যাসের
উদ্রেক কমায়।

মৌরির, বাতাসা ও মিছরির জল-

মৌরির, বাতাসা ও মিছরি ভিজিয়ে সেই জল সকাল বেলা খেলে গ্যাস থাকে না।

দারুচিনি-

দারুচিনি হযমের জন্য খুবই ভালো। একটি গ্লাসে ১/২ চামচ দারুচিনির গুঁড় দিয়ে গরম জলে ফুটিয়ে খেলে গ্যাস দুরে থাকবে।

পুদিনা পাতার জল-

একটি গ্লাসে ৪ টি পুদিনা পাতা দিয়ে গরম জলে ফুটিয়ে খান। পেট ব্যাথা,বমিভাব সেরে যাবে।

এলাচ –

এলাচ গুঁড়ো খেলে অম্বল দূরে থাকে।

লেবু-

লেবু গ্যাস, অম্বলের সমস্যা দূর করতে বিশেষ ভুমিকা পালন করে। প্রচণ্ড গ্যাস হলে বা হঠাৎ করে গ্যাসের সমস্যা দেখা দিলে
লেবুর রস বাবহারে সাথে সাথে আরাম পাওয়া যায়। এক কাপ জলে সামান্য লেবুর রস ও কিছুটা বেকিং সোডা নিয়ে খারার খাওয়ার
৩০ মিনিট পর খান। অবশ্যই উপকার পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Content

link to পুজোয় রাজ্যে জুড়ে প্রবল বৃষ্টির সম্ভবনা - ভাসবে কলকাতা । Rain in Durgapujo

পুজোয় রাজ্যে জুড়ে প্রবল বৃষ্টির সম্ভবনা - ভাসবে কলকাতা । Rain in Durgapujo

পুজোয় সারা রাজ্যে প্রবল বৃষ্টির সম্ভবনা। এমনই খবর জানালো আবহাওয়া দপ্তর।...